আয় না বাড়ায় কর্মী ছাঁটাই মাইক্রোসফটে

ডেস্কটপ কম্পিউটারের জন্য উইন্ডোজের লাইসেন্স বিক্রি কমে আসায় আয় বৃদ্ধির হার কমছে সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফটের; পরিস্থিতি সামাল দিতে কর্মী ছাঁটাইয়ের পথ বেছে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এ সফটওয়্যার জায়ান্ট।

আয় না বাড়ায় কর্মী ছাঁটাই মাইক্রোসফটে

কর্মী ছাঁটাইয়ের খবর নিশ্চিত করেছেন এক মাইক্রোসফট মুখপাত্র। আরও তিন মাসেই আগেই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে এবং কোম্পানির ১ শতাংশ কর্মীর ওপর এর প্রভাব পড়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ভূরাজনৈতিক অস্থিরতার দৃশ্যপটে আর্থিক মন্দার শঙ্কায় কর্মী ছাঁটাই করে খরচ কমানোর পথ বেছে নিচ্ছে প্রযুক্তি শিল্পের প্রথম সারির কোম্পানিগুলো। ইতোমধ্যেই কর্মী ছাঁটাই করেছে কয়েনবেইজ এবং নেটফ্লিক্সসহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান।

ঘোষণা দিয়ে নতুন কর্মী নিয়োগের সে গতি কমিয়েছে মেটা প্ল্যাটফর্মস আর সেলসফোর্সের মতো সিলিকন ভ্যালিকেন্দ্রীক একাধিক প্রতিষ্ঠান।

এ প্রসঙ্গে মাইক্রোসফটের মুখপাত্র এক মার্কিন সংবাদমাধ্যম্কে  বলেছেন, অন্য কোম্পানির মতো আমরাও আমাদের ব্যবসায়িক দৃষ্টিকোণ থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়মিত মূল্যায়ন করি ও সে অনুযায়ী ব্যবস্থাপনা এবং কাঠামো প্রয়োজন অনুযায়ী সমন্বয় করি।

সোমবারেই কর্মী ছাঁটাই প্রসঙ্গে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল সংবাদমাধ্যম এক্সিওএস। ওই প্রতিবেদন বলছে, এক হাজারের মতো কর্মী ছাঁটাই করেছে মাইক্রোসফট। তবে তথ্য সূত্রের পরিচয় চেপে গেছে সংবাদমাধ্যমটি।

জুলাই মাসে আর্থিক বছরের প্রথম প্রান্তিকে আয় বৃদ্ধির হার ১০ শতাংশে থাকার খবর জানিয়েছিল মাইক্রোসফট। গত পাঁচ বছরের তুলনায় যা ছিল মাইক্রোসফটের সবচেয়ে ধীর গতির আয় বৃদ্ধির হার।

২৫ অক্টোবর সর্বশেষ প্রান্তিকের আয়ের হিসেব দেওয়ার কথা রয়েছে কোম্পানিটির।