ইরানের বিষয়ে ইসরাইলের সঙ্গে আলোচনা করবে যুক্তরাষ্ট্র

ইরান ইস্যুতে ইসরাইলের সঙ্গে আলোচনা করার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভানের আসন্ন ইসরাইল সফরে এ নিয়ে আলোচনা হবে।

ইরানের বিষয়ে ইসরাইলের সঙ্গে আলোচনা করবে যুক্তরাষ্ট্র

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) হোয়াইট হাউসে এক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে জ্যাক সুলিভান নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

 ইরানের পারমাণবিক অস্ত্রের হুমকি নিয়ে ইসরাইলের নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে বৈঠকে বসবেন জ্যাক সুলিভান। তবে তার আসন্ন এ সফরসূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

ইরানের পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করার বিষয়ে ইসরাইলের বিরোধিতা সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জ্যাক সুলিভান বলেন, আপাতত এ নিয়ে কিছু বলতে চান না তিনি। তবে ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যবহারের জন্য রাশিয়াকে তেহরানের ড্রোন সরবরাহ ও  ইরানে বিক্ষোভকারীদের ওপর দমন-পীড়ন বন্ধের উপর জোর দেন সুলিভান।

জ্যাক সুলিভান বলেন, ‘ইরানের হুমকির বিষয়ে ইসরাইলের নতুন সরকারের সঙ্গে আমাদের গভীরভাবে আলোচনার সুযোগ রয়েছে। কেননা, আমি মনে করি আমাদের মৌলিক উদ্দেশ্য একই। গত দুবছরের মতো সামনের দিনগুলোতেও কৌশলগত কোনো মতপার্থক্য থাকলে সেটি অবসানের চেষ্টা করব।’

ইসরাইল বরাবরই যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমাদের সঙ্গে ইরানের পারমাণবিক সমঝোতার ঘোর বিরোধী। তেল আবিব মনে করে, তেহরানের পারমাণবিক অস্ত্রের বিকাশ থামাতে এ চুক্তি যথেষ্ট নয়। ইরানকে থামাতে বরং দেশটির বিষয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আলোচনায় আগ্রহী তেল আবিব।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সম্প্রতি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের একযোগে কাজ করার সময় এসেছে। ইরান ইস্যুতে আমাদের ঐকমত্য এখন আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় আরও বেশি।’